ব্রেকিং নিউজ রাজ্য

স্কুল খোলা নিয়ে দ্বিতীয় জনস্বার্থ মামলা

স্কুল খোলা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের দ্বিতীয় জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল। মামলা দায়ের করেছেন এআইএসএফ রাজ্য সভাপতি সৌমেন হালদার।রাজ্যে স্কুল-কলেজ খোলার দাবিতে চলতি সপ্তাহে আরেকটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয় কলকাতা হাইকোর্টে। মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে মামলাটি দায়ের করেন আইনজীবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়।

এআইএসএফ রাজ্য সভাপতি সৌমেন হালদার আবেদন, “স্কুল খোলা নিয়ে রাজ্য সরকার সুনির্দিষ্টভাবে একটা পরিকল্পনা করুক। করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে স্কুল খোলা রাখা যায় তা নিয়ে একটা নীতি তৈরি করুক রাজ্য, অন্যান্য শর্তসাপেক্ষে অনেক কিছুই খোলা রয়েছে সেখানে শুধুমাত্র স্কুল বা কলেজ এগুলো কেন বন্ধ থাকবে?”

সংবিধানে সবার জন্য বিনামূল্যে শিক্ষার অধিকারের কথা বলা আছে। বর্তমানে অনলাইনে পড়াশোনার জন্য সব পড়ুয়াদের কাছে ল্যাপটপ, স্মার্টফোন, হাই স্পিড ইন্টারনেট নেই। এই ব্যয়ভার বহনের ক্ষমতাও প্রত্যেকের থাকে না। এই পদ্ধতিতে পড়াশোনা চালাতে হলে রাজ্যের সব ছাত্র-ছাত্রীদের ই-লার্নিং এর সমস্ত গ্যাজেটের খরচ রাজ্য সরকারকে বহন করার দাবি জানান আইনজীবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালে মার্চ মাসে করোনা আবহে প্রথম বন্ধ হয় স্কুল, কলেজ সহ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তারপর গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে শর্তসাপেক্ষে স্কুল খোলে । শুরু হয় কলেজের অফলাইন ক্লাস। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তেই আবারও বন্ধ হয়ে যায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। বিধি মেনে গত বছর ১৬ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে স্কুল-কলেজ। শর্তসাপেক্ষে স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয় নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের। কিন্তু আবারও করোনার হানা। ৩ জানুয়ারি থেকে রাজ্যে ফের বন্ধ হল স্কুল-কলেজ।